মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলার ঐতিহ্য

কোন্দা বাইচ : ফুলবাড়ীয়া ইতিহাস পর্যালোনায় দেখা যায় বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ফুলবাড়ীয়া, ফুলবাড়ী, ফুলচৌকিগুলোকে অনিসন্ধিৎসু ঐতিহাসিকগণ আধুনিককালের ডাকবাংলো মনে করেন। অনুমান করা হয় যে, ফুলবাগিচায় সজ্জিত বাড়ীগুলোতে রাজধানী থেকে রাজস্ব আদায়কারী রাজপ্রতিনিধিগণ অস্থায়ী বা সাময়ীকভাবে বসবাস করতেন। অন্যদিকে রাজা বা রাজপুরুষগণের শিকার, ভ্রমণ বা বিনোদনের প্রয়োজনেও এই ফুলচৌকিগুলো নির্মীত হয়ে থাকতে পারে। যা আজও বিদ্যমান। এখানে ঐতিহ্যের মধ্যে নদীগুলোতে কোন্দা বাইচ অন্যতম। কোন্দা বাইচ হলো তিন তক্তায় নির্মিত ছোট নৌকা। যে নৌকাগুলোতে একজনমাত্র লোক বসতে পারে। ঈদ উৎসব, বিজয় দিবস উৎসব এছাড়াও অন্য জাতীয় অথবা স্থানীয় লোকজন কোন্দা বাইচ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে। এটি এখানকার একটি ঐতিহাসিক ঐতিহ্য।

 

গুমগুটি খেলা : বাংলাদেশের ময়মনসিংহ জেলার একমাত্র ফুলবাড়ীয়াতে গুমগুটি খেলা প্রচলন রয়েছে। এটি এমন একটি খেলা যে খেলায় একটি গুটি ব্যবহার করা হয় যে গুটিটি পিতল দ্বারা নির্মিত এবং যার ওজন ৪০-৫০ কেজি পর্যন্ত হয়ে থাকে। এই খেলাটির অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো এখানে নির্দিষ্ট সংখ্যক খেলোয়ার থাকে না, কোন রেফারী থাকে না, কোন নির্দিষ্ট আইন দ্বারাও খেলাটি পরিচালিত হয়নি। হাজার হাজার জনতা এই খেলায় অংশ গ্রহণ করে। তারা এলাকাভিত্তিক কয়েকটি দলে বিভক্ত থাকে যা অন্য উপজেলা বা জেলা থেকে অংশগ্রহণ করে থাকে। খেলাটির নিয়ম হচ্ছে এলাকাভিত্তিক গুটিটি লোকিয়ে ফেলা। একেকটি এলাকার লোক চেষ্ঠা করে তার নিজ এলাকায় গুটিটি লোকিয়ে ফেলা। যদি কোন এলাকার লোক গুটিটি লোকিয়ে ফেলতে পারে তাহলে সেখানেই খেলাটির পরিসমাপ্তি ঘটে।

 

লাঠি খেলা : লাঠি খেলা ফুলবাড়ীয়ার অন্যতম ঐতিহ্য। এখেলায়ও নির্দিষ্ঠ সংখ্যক খেলোয়ার থাকে না। কিছুসংখ্যক লোক হাতে লাঠি, পায়ে গুঙ্গুড়, কোমড়ে গামছা বেধে এ খেলায় অংশ গ্রহণ করে। খেলোয়ারবৃন্দ বিভিন্ন জারিগান ও ডাক ঢোল বাজনার তালে তালে এ খেলাটি খেলে থাকেন। এ খেলাটিতে কোন হারজিত নেই। শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য এ খেলাটি পরিচালিত হয়ে থাকে। সাধারণত শীতকাল এবং বিভিন্ন ঐতিহাসিক দিবসে স্থানীয় প্রশাসন এবং গ্রামের স্থানীয় লোকজন এ খেলাটি আয়োজন করে থাকেন। বর্তমানে এ খেলাটি বিলুপ্তপ্রায়।